Translate

বিলুপ্তপ্রায় গ্রামবাংলার গরু ও ঘোড়ার গাড়ী

সাকলাইন শিহাব(১৪),সিরাজগঞ্জঃ
আধুনিক যানবাহনের ভিড়ে হারিয়ে যাচ্ছে গ্রাম এতিহ্যবাহী গরু ও ঘোড়ার গাড়ী।সেই সঙ্গে বিলুপ্তির পথে গাড়িয়াল পেশাও।গ্রাম গঞ্জের আঁকাবাঁকা মেঠো পথ ধরে চলা গরুর ও ঘোড়ার গাড়ী এখন আর চোখের নজরে পরে না।

যা একসময় গুরুত্বপূন বাহন হিসেবে প্রচলিত ছিল।বিভিন্ন উৎসব-অনুষ্ঠানে এই যানবাহনগুলো ছিল অপরিহার্য বস্তু।গাড়িয়ালরা গাড়ি চালানোর সময় আনন্দে গাইতো নানান রকমের গান।বাংলাদেশের অনেক জেলা, উপজেলা ও গ্রামের উৎসব-অনুষ্ঠানে গরু ও ঘোড়ার গাড়ি ছাড়া অসম্পূর্ন থেকে যেত। 

কিন্তু আধুনিক এই যুগে হরিয়ে যাচ্ছে গরুর ও ঘোড়ার গাড়ি।এখন আর দেখা যায় না। হাতে গোনা দু-একটা গ্রামে দেখা গেলেও সেগুলোর অবস্থা জরাজীর্ন। এক সময় দেশের নদী বেষ্ঠিত চর এলাকার গ্রাম গুলোতে মানুষের যাতায়ত ও কৃষি পন্যসহ প্রয়োজনীয় মালামাল পরিবহনের মাধ্যম ছিল গরু ও ঘোড়ার গাড়ী।আজ শহরের ছেলে-মেয়েরা তো দূরের কথা গ্রামের ছেলে-মেয়েরাও খুব একটা পরিচিত নয় এগুলো যানবাহনের সাথে ।এক সময় এই গাড়ি ছিল মানুষের উপার্জনের বিশেষ অবলম্বন। যান্ত্রিক সভ্যতার যুগে এখন গরুর গাড়ি ও ঘোড়ার গাড়ি বিলুপ্তির পথে।বাংলার এবং বাঙ্গালির এতিহ্য  বাঁচিয়ে রাখা এখন সময়ের দাবি।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য