Translate

।।কবিতাঃ বিজয়ের মন্ত্র।।



 নির্মল দাস মন্টু, সিলেট


তোমার জন্য জীবন দিয়েছে, লক্ষ বীর বাঙ্গালি।


কে তুমি?

এত রক্তচূষী ভয়ংকরী।


আমি আর কেউ নই,

আমি পাকিস্তানি।


কি চাও তুমি? আমি চাই,

বাংলার শাসন, শোষণ, অধিকারহীন বাঙ্গালি।


আমি বাঙ্গালি বলছি,

যুদ্ধ করব,কিন্তু বাংলার বুকে শাসন, শোষণ, অত্যাচার, নির্যাতন করতে দেব না।


পাকিস্তানি মিলিটারিরা বাংলার গ্রামের পর গ্রাম পুড়িয়ে দিচ্ছে। হত্যা করছে বাংলার মানুষকে।


এই হত্যাযজ্ঞ কী বন্ধ হবে? দিন যায়, মাস যায়,চলছে খান্ডবদাহন।।


হঠাৎ! জনতার মঞ্চে এলেন,

এক রাজনৈতিক কবি।"শেখ মুজিব"


তিনি জনতার কণে দিলেন, মুক্তিযুদ্ধের মহামন্ত্র।


বাঙ্গালিরা যুদ্ধের মহামন্ত্র শ্রবণ করে।


সবাই মিলে গড়ে তুলে সংগ্রাম পরিষদ দূর্গ


বাঙ্গালিদের যুদ্ধ শুরু, মারছে বাঙ্গালি, মরছে পাকিস্তানি।


কি করবে পাকিস্তানি? দিশাহারা হয়ে সিদ্ধান্ত নিল। বাঙ্গালিদের কাছে মাথানত করবে বলে।


১৬ই ডিসেম্বর পাকিস্তানি জড়ো হল, আত্নসমর্পন দলিলে স্বাক্ষর দিল।


হত্যাযজ্ঞ বন্ধ হল, বাংলাদেশে স্বাধীনতা এল।



একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ