Translate

শুনতে কি পাও, রংপুরে আগুনে পোড়া বাড়ির মানুষগুলোর কান্না!

শুনতে কি পাও, রংপুরে আগুনে পোড়া বাড়ির মানুষগুলোর কান্না!


মো: আব্দুল্লা বিন সিরাজ,শিশুবার্তা প্রতিনিধি,রংপুরঃ

রংপুর জেলার গংগাচড়া উপজেলার নোহালি ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের উ”চগ্রামে গত ২২ এপ্রিল ২০১৯ইং তারিখ সন্ধা ৬:০০ টায় বিদ্যুতের শর্ট সার্কিটের কারনে আগুন লাগে।

সরকারি আবাসন প্রকল্পের আওতায় উ”চ গ্রামে প্রায় ৫০ টি হতদরিদ্র পরিবার আশ্রয় নেয় । এখানে আশ্রয় নেওযা ১০টি পরিবার গতকাল সন্ধা ৬ টায় তাদের বসবাসের প্রয়োজনীয় সব জিনিসপত্র হারায়। তাদের পরিধানের পোষাক ব্যতিরেকে কোনো কিছুই অবশিষ্ট নেই।

ক্ষতিগ্রস্থদের মধ্যে এক বিধবা নারী আরজু বেওয়া বিলাপ করে জানায় ,’’আমার স্বামি মারা যাওয়ার পর থেকে অনেক কষ্ট করে সংসার চালাই। মানুষের বাড়িতে কাজ করে গত ১০ বছরে ৯০,০০০ টাকা জমিয়েছিলাম তা এই আগুনে হারিয়েছি। এখন পরনের কাপড় ছাড়া আর কিছু অবশিষ্ট নাই। সকল আসবাবপত্র পুরে ছাই হয়ে গেছে।

আপরদিকে মোছা: দিল্পি বেগম বলেন,’’আমার নগত ৭০,০০০ টাকা সহ বিছানাপত্রসহ সব পুরে ছাই হয়েছে।”
এখানে বসবাসরত সব পরিবারের একই অবস্থা খাবার,চাল,ডাল সব পুরে ছাই হয়ে গেছে।

নোহালি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো: আবুল কালাম আজাদ ও গংগাচড়া উপজেলার তাছলিমা আক্তার ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারকে ২-৩ দিন চলার মতো খাবার বিতরন করেন। এবং ক্ষতিগ্রস্থদের সাহয্য করার আশ্বাস দেন।

সারাদেশে আগুন লাগার ঘটনা দিন দিন বেড়েই চলেছে। আর আগুন লাগার বেশিরভাগ কারনই অপরিকল্পিত নগরায়ন এবং অসাবধানতা। এসব বিষয়ে যথাযথ কতৃপক্ষের সুদৃষ্টি সকলের কাম্য।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য