Translate

যশোর জেল হেফাজতে গাইবান্ধার শিশুর আত্মহত্যা

হুজাইফা হোসাইন,শিশু বর্তা প্রতিনিধি, গাইবান্ধাঃ গাইবান্ধা সদর মালিবাড়ী ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডের সরকার পাড়া গ্রামের বাসিন্দা মতিন মিয়ার ছেলে নুর ইসলাম (১৪) যশোর জেলখানায় আত্মহত্যা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

যশোর জেলখানা কর্তৃপক্ষ জানায় গত ৩০-০৬ ২০১৯ ইং তারিখে বিকাল সাড়ে ৫ টার সময় কেন্দ্রের ৫০ ডরমেটরী হাউজের ২নং কক্ষের উচু জানালার গ্রীলের সাথে লুঙ্গী দিয়ে গলায় ফাঁস দিলে অন্য নিবাসীদের চিৎকারে কর্তব্যরত গার্ডরা খবর পেয়ে তাকে দ্রুত যশোর সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। সদর হাসপাতালে নেওয়ার পর কর্তব্যরত ডাক্তার উক্ত শিশু নুর ইসলাম কে মৃত ঘোষণা করে।

নুর ইসলাম এর পরিবার জানান, আমার ছেলে নুর ইসলাম মোবাইল ফোনটি রাস্তায় পড়ে পায়। কিন্তু মন্জু ও তার ভাই সাজু মোবাইল চুরির অপরাধে বেধর মারপিট করে নুর ইসলামকে। পরে সদর থানা পুলিশের কাছে ধরিয়ে দেয়।

মন্জুর কাছে জানতে চাইলে সে জানায়, প্রায় দেড়মাস আগে কামরারজানি বাজারের মন্জু টেলিকমে মোবাইল ফোন চুরি হয়। পরে মন্জু গাইবান্ধা সদর থানায় অভিযোগ করে, নুর ইসলাম মন্জুর দোকানে চুরি হওয়া মোবাইল ফোনটি কামারজানি বাজারের মিনুর দোকানে বিক্রি করতে গেলে মিনু নুর ইসলাম কে চুরি হওয়া মোবাইল ফোন সহ মন্জুর দোকানে নিয়ে আসে, পরে মন্জু পুলিশ কে খবর দিলে পুলিশ শিশু নুর ইসলাম কে আটক করে।মন্জু আরও বলেন যে আমি নুর ইসলাম কে কোন মারপিট করিনি।

নুর ইসলামের পরিবার ও এলাকাবাসির দাবি নুর ইসলামের মৃত্যুর সুষ্ট তদন্ত চায় তারা।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ