Translate

কবিতাঃ মুক্তি

মোঃ মাহিন সরকার,ঠাকুরগাও


আমায় সাজা দেওয়ার আগে
অন্তত একবার আমাকে জিজ্ঞাসা করা হোক
কেন আমি এ পথে এলাম?
বুকে ক'টি দীর্ঘশ্বাস
চোখে ক'টি নদীর জল
নিয়ে আমি বেঁচে আছি?
আমাকে জিজ্ঞাসা করা হোক
আমার কোথায় কেটেছে দিন
কোথায় কেটেছে রাত?
জিজ্ঞাসা করা হোক কিভাবে রাতগুলো কেটেছে পথের ধারে ও গাছের তলে?
অথচ ওরা বৃষ্টির দিনে দিব্যি ফুর্তিতে নাক ডেকে ঘুমিয়েছে।
আমায় জিজ্ঞাসা করা হোক
ক'টা দিন না খেয়ে কেটেছে?
না খেয়ে থাকার কি যন্ত্রণা?
শুনেছি শিশুরা ফুলের মতো পবিত্র হয়
অথচ আমি পথশিশু হওয়ার অপরাধে
ওরা পাপ শব্দটি উচ্চারণ করেছে দু'শ কোটি বার।
মহামান্য ধর্মাবতার আমায় সাজা দেওয়ার আগে
একবার জিজ্ঞাসা করুন
বাবা-মা না থাকা
চোর সেজে দু'বেলা আহার যোগানো কতটা কষ্টের?
তারপর টোকাই হবার অপরাধ
আমায় যা ইচ্ছে সাজা দিন।
এমনকি আমি ফাঁসিতে ঝুলতেও প্রস্তুত।
ফাঁসিতে ঝুলার চেয়েও বেশি যন্ত্রণায় মরেছি সবকটা দিন_রাত।
প্রত্যেকটা দিন প্রত্যেকটা রাত
আমার কাছে একএকটা মৃত্যু।
অনেক ভুগেছি বেঁচে থাকার বিষন্নতায়
আর পারছিনা।
এ কাঠগড়ায় দাঁড়িয়ে বলছি
ছোট দু'টো হাত পেতে,
হে ধর্মাবতার পথশিশু ও টোকাই হবার অপরাধ আমার ফাঁসির রায় দিন। আমি পৃথিবী নামক নরক থেকে মুক্তি চাই।
মুক্তি চাই।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য