Translate

তাড়াশে স্কুল ছাত্রী ধর্ষণের ঘটনায় ৩ জনের নামে মামলা



স্টাফ রিপোর্টার:

সিরাজগঞ্জের তাড়াশ পৌর এলাকায় এক স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ করায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। রবিবার (৯ ফেব্রুয়ারী)রাতে ধর্ষিতার বাবা শরিফুল ইসলাম তাড়াশ থানায় ধর্ষকের নামে মামলা করে। ভাদাশ গ্রামের রফিকুলের ছেলে তানজিল (২০)কে সহ ৩ জনের নামে ধর্ষণ ও ধর্ষণ সহায়তা করায় এ মামলা করা হয়। মেয়েটির পরিবার সূত্র জানায়, তাড়াশ সদরের পূর্ব ওয়াপদা বাধ এলাকায় বসবাসরত মেয়েকে প্রতিবেশি ভাদাস গ্রামের রফিকুল ইসলামে বখাটে ছেলে তানজীল (২০) স্কুলে যাবার পথে প্রায়ই প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিলো। বৃহস্পতিবার বিকেলে বাড়িতে ডেকে এনে মেয়েটিকে প্রেমের প্রস্তাব দেয়। এ সময় সে তা প্রত্যাখান করলে তানজিল জোর করে তাকে ধর্ষন করে। রক্তাক্ত অবস্থায় স্কুল ছাত্রী দৌড়ে বাড়িতে চলে এসে ঘটনাটি তার পরিবারকে জানায়। পরে পরিবারের লোকজন তাকে প্রথমে তাড়াশ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে সিরাজগঞ্জ বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। বর্তমানে এ হাসপাতালে ওই স্কুল ছাত্রী চিকিৎসাধীন রয়েছেন। সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডা. রঞ্জন কুমার দত্ত বলেন, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ১৪ বছর বয়সী ওই কিশোরী ভর্তি হয়। তার নিম্নাঙ্গের ক্ষতে সেলাই দেয়া হয়েছে।
এ প্রসঙ্গে তাড়াশ থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাহবুবুল আলম নিশ্চিত করে বলেন, মেয়েটির বাবা শরিফুল ইসলাম ৩ জনের নামে মামলা করেছে। আমরা আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নিব।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য