Translate

নির্মাণধীন গেট ধসে পড়ে শিশুসহ নিহত চারজন


মোঃ রিফাত খান, স্টাফ রিপোর্টার: 
সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলার গুল্টা শহীদ এম. মনসুর আলী ডিগ্রি কলেজের নির্মাণাধীন গেট ধ্বসে এক শিশুসহ ৪ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে কমপক্ষে আরও ৭ জন।

মঙ্গলবার (১৭ মার্চ) বিকেল চারটার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনার পরপরই তাড়াশ ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীরা আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছে।

নিহতরা হলেন- উপজেলার তালম ইউনিয়নের গাবরগাড়ি গ্রামের মৃত জাহের উল্লাহর ছেলে তোজাম, বারুহাস ইউনিয়নের বস্তুল গ্রামের মৃত সুলতান ইসলামের ছেলে রাশিদুল ইসলাম, সিংড়া উপজেলার শুকাস ইউনিয়নের নিচিন্তপুর গ্রামের শাহাদত হোসেনের ছেলে আসিফ ও শাহজাদপুর উপজেলা বাসিন্দা গরুর ব্যবসায়ী খাদেম আলী। 

গুরুতর আহত দুইজন তালম ইউনিয়নের তালম গ্রামের শাহিনুরের ছেলে বাবু ও লাউসন গ্রামের মৃত আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে শফিকুল ইসলাম। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে তাড়াশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুবুর রহমান জানান, প্রতি মঙ্গলবার গুলটা কলেজ চত্বরে হাট বসে। হাটের দিন হওয়ায় গেটের সামনে মানুষের ভিড় ছিল। বিকেল চারটার দিকে হঠাৎ নির্মাণাধীন গেট ধ্বসে লোকজনের ওপর পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই শিশুসহ চারজন মারা যায়। আহত হয় অন্তত ৭ জন।

সংবাদ পেয়ে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা হতাহতদের উদ্ধার করে।এ প্রসঙ্গে অত্র কলেজের প্রভাষক আবুল বাসার অভিযোগ করে বলেন, কলেজের অধ্যক্ষ একক সিদ্ধান্ত নিয়ে নিম্মমানের সামগ্রী ব্যবহার করে গেটটি নির্মাণ করায় এ দুর্ঘটনা ঘটেছে।তবে অপরদিকে কলেজের অধ্যক্ষ আসাদুজ্জামান আসাদ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, সঠিকভাবেই গেট নির্মাণ করা হচ্ছে। তবে কী ভাবে, কী কারণে ভেঙে পড়ল তা বোধগম্য নয়।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) ইফফাত জাহান মুঠোফোনে জানান, এ ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য