Translate

কলেজ ছাত্রীর খুনির ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন


মোঃ মাহফুজুল হক (তুষার), জামালপুর প্রতিনিধি

জামালপুরের সরকারি আশেক মাহমুদ কলেজের স্নাতক (ডিগ্রী) তৃতীয় বর্ষের মানবিক শাখার ছাত্রী শামছুন্নাহারের আত্মস্বীকৃত খুনি জামিলের ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে কলেজের ছাত্র-ছাত্রীরা। বুধবার (০৪ ঠা মার্চ)  বেলা ১২টায় কলেজ ক্যাম্পাসে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মাববন্ধনে বক্তব্য রাখেন সরকারি আশেক মাহমুদ কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. মুজাহিদ বিল্লাহ ফারুকী, উপাধ্যক্ষ প্রফেসর মো. হারুন অর রশিদ, শিক্ষক সংসদের সম্পাদক ও বাংলা বিভাগের  সহযোগী অধ্যাপক আব্দুল হাই আলহাদী, সরকারি আশেক মাহমুদ কলেজ শাখা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক খাবীরুল ইসলাম খান বাবু, যুগ্ম আহ্বায়ক তারিফ হোসেন বাবু প্রমুখ।

মানববন্ধনে বক্তারা কলেজ ছাত্রীর নৃশংস বর্বরোচিত হত্যাকান্ডের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান৷ এবং নিহত শামসুননাহারের ঘাতক স্বামী  আত্মস্বীকৃত খুনি জামিল মিয়ার ফাঁসির দাবি জানান। কলেজের শিক্ষক ও ছাত্র-ছাত্রীরা এ মানববন্ধনে অংশ নেন।

উল্লেখ্য, গত ২ মার্চ রাতে ঢাকার  ভাড়া বাসায় স্বামী জামিল মিয়ার হাতে খুন হন কলেজছাত্রী শামছুন্নাহার। ঘটনার রাতেই জামিল মিয়া নিজেই আশুলিয়া থানায় গিয়ে স্ত্রীকে হত্যার দায় স্বীকার করেন। পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। নিহত  ছাত্রী শামছুন্নাহার জামালপুর জেলার মেলান্দহ উপজেলার চরপলিশা গ্রামের মো. আব্দুস ছালামের মেয়ে। দু বছর আগে একই উপজেলার বাঘাডোবা গ্রামের মো. শাহ জাহানের ছেলে জামিল মিয়ার (৩০) সাথে বিয়ে হয় শামছুন্নাহারের। বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের জন্য  তাদের মধ্যে পারিবারিক কলহ দেখা দেয়।গত  দুই মাস আগে তারা ঢাকার আশুলিয়ার ঘোষবাগ এলাকায় ভাড়া বাসায় উঠে৷

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ