Translate

সপ্তম শ্রেনীর স্কুলছাত্রীর বাল্যবিয়ে বন্ধ করল ইউএনও


শিশু বার্তা প্রতিনিধি,সিরাজগঞ্জ:সিরাজগঞ্জ জেলার বেলকুচি উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়নের আজুগড়া পাকুরতলা গ্রামে করোনা আতংকের মাঝে বাল্যবিয়ে দেয়ার চেষ্টা সোমবার (০৭ সেপ্টেম্বর) বিকালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সপ্তম শ্রেনীর এক স্কুল ছাত্রীর বিয়ে বন্ধ করেন বেলকুচি উপজেলার উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আনিসুর রহমান

ভ্রাম্যমাণ আদালত একটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছেন, বেলকুচি উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়নের আজুগড়া পাকুরতলা গ্রামে সপ্তম শ্রেনীর এক স্কুল ছাত্রীকে বাল্যবিবাহ দেওয়ার আয়োজন চলছিলএমন সংবাদের ভিত্তিতে সোমবার (০৭ সেপ্টেম্বর) বিকালে ভ্রাম্যমাণ আদালত সংগীয় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী নিয়ে কনের বাড়ীতে উপস্থিত হন

তখন কনের বাড়ীতে কনে বেলকুচি উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়নের আজুগড়া পাকুরতলা তখন কনের নানার বাড়ীতে বেলকুচি উপজেলার আজুগড়া পাকুরতলা গ্রামের সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী (১৩) এর সাথে শাহজাদপুর উপজেলার জামিরতা গ্রামের তাত শ্রমিক (৩০) এর বিয়ের আয়োজন চলছিল কনে স্থানীয় উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেনীর ছাত্রীকনে অপ্রাপ্তবয়স্ক হওয়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালত বাল্যবিবাহ বন্ধ করে

এ বিষয়ে বেলকুচি উপজেলার উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আনিসুর রহমান জানান, এসময় কনের অভিভাবকদের বাল্যবিবাহের কুফল সম্পর্কে বুঝালে তারা তাদের ভুল বুঝতে পারেন এবং তার মেয়েকে প্রাপ্তবয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বিবাহ দিবেন না মর্মে মুচলেকা নেয়া হয়

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন পেশকার মোঃ হাফিজ উদ্দিন ও আনসার বাহিনীর সদস্যবৃন্দ


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ