Translate

নববর্ষে দুঃস্থ নারীদের মাঝে ইয়ুথ নেটওয়ার্ক ফাউন্ডেশনের বস্ত্র বিতরণ

স্টাফ রিপোর্টার: বাঙালির প্রাণপ্রিয় গৌরবের উৎসব পহেলা বৈশাখের আনন্দ সকলের। কিন্তু আমাদের চারপাশে এমন অনেক দুঃস্থ ও নিপীড়িত মানুষ রয়েছে যাদের পহেলা বৈশাখ কাটে জরাজীর্ণভাবে। জীবনে থাকে না কোনো রঙিন উৎসব। এসব মানুষ ও নারী উন্নয়নের কল্যাণে এবার পহেলা বৈশাখের উপহার হিসাবে প্রায় অর্ধ

শতাধিক শাড়ি পৌঁছে দিয়েছে নোন-প্রফিট সংগঠন “ইয়ুথ নেটওয়ার্ক ফাউন্ডেশন”।

আজ মঙ্গলবার (১৩ই এপ্রিল) সিরাজগঞ্জের কান্দাপাড়া ইউনিয়নে অনুষ্ঠিত হয় "দুঃস্থ নারীদের নিয়ে নতুন বছর নতুন বস্ত্র উৎসব।" এ আয়োজনে "ইয়ুথ নেটওয়ার্ক ফাউন্ডেশন" পরিচালনায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে প্রায় অর্ধশতাধিক নারীর মাঝে শাড়ি বিতরণ করে। এছাড়াও তাদের মধ্যে করোনা সচেতনতামূলক জ্ঞান ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার দেওয়া হয়। এসকল কার্যক্রমের পরিচালনার দায়িত্বে ছিলেন ইয়ুথ নেটওয়ার্ক ফাউন্ডেশন এর সদস্য দীপংকর ভদ্র দীপ্ত। এছাড়াও স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছে সাদ বিন মাসুদ ও
আসাদুজ্জামান নাদিম।

প্রসঙ্গত, গত ২১ শে ফেব্রুয়ারি প্রতিষ্ঠিত হয় ওয়াই.এন.এফ ফাউন্ডেশনটি। "We For Change" এই স্লোগানকে সামনে রেখে দুঃস্থ ও সুবিধাবঞ্চিত মানুষদের নিয়ে সম্ভাবনার বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে সংগঠনটি রাজধানী সহ দেশের বিভিন্ন জেলায় তাদের কার্যক্রম চলাচ্ছে। এর আগে গত ১৭ই মার্চ শিশুদিবস উপলক্ষ্যে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের নিয়ে বৃহৎ আকারে ইভেন্ট আয়োজন করে, যা দেশব্যাপী আলোড়ন সৃষ্টি করে।

ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ও বর্তমান প্রেসিডেন্ট কৌশিক কুমার গুহ জানান, “আমরা সমাজের পিছিয়ে পড়া অসহায়, দুঃস্থ ও ছিন্নমূল মানুষদের জন্য কাজ করে যাচ্ছি, সেই সাথে তাদেরকে সহযোগিতার মাধ্যমে তাদের বিকশিত করতে নিরলসভাবে কাজ করছে আমাদের এই ফাউন্ডেশন । এজন্য ভবিষ্যতে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের নিয়ে “ফ্রাইডে স্কুল” প্রজেক্ট এর মাধ্যমে পাঠদান, খাবার বিতরণ ও খেলাধুলার মাধ্যমে এসব শিশুদের আগামী দিনের জন্য গড়ে তোলার চেষ্টা করছি আমরা। এজন্য প্রয়োজন সকলের একনিষ্ঠ ভাবে এগিয়ে আসা ও সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেওয়া।”

সংগঠনটির অন্য আরেক সদস্য চন্দন পাল বলেন, "আমরা আমাদের সংগঠনের মাধ্যমে সুবিধাবঞ্চিত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর সর্বদা চেষ্টা করব এই প্রত্যশা করছি, ইভেন্টটি আরো বড় আকারে করার ইচ্ছে ছিলো কিন্তু করোনা ও লকডাউনের জন্য স্বল্পপরিসরে করতে হলো। সকলের সহযোগিতা ও ভালোবাসায় এভাবেই আমরা এগিয়ে যাবো এই প্রত্যয় করছি।"

ইয়ুথ নেটওয়ার্ক ফাউন্ডেশন এর এই কার্যক্রমের ফলে দুঃস্থ নারীদের মাঝে আনন্দ ছড়িয়ে পড়ে। তারা জানায়, “লকডাউনের মাঝেও আমাদের এই পহেলা বৈশাখ অনেক রঙিন ও আনন্দপূর্ণ হয়ে উঠবে।”

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য