Translate

কারখানায় শিশু শ্র্রমিক ছিল কিনা তদন্ত হবে: শ্রম প্রতিমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক:

নারায়ণগঞ্জ রূপগঞ্জে আগুনে পুড়ে যাওয়া সজীব গ্রুপের কারখানায় শিশু শ্রম ছিল কিনা তা খতিয়ে দেখা হবে বলে জানিয়েছেন শ্রম প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান। অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় কারো গাফিলাতি থাকলে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও তিনি জানান। শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে এসব কথা বলেন বলে শুক্রবার এক তথ্য বিবরণীতে বলা হয়।

প্রতিমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, অগ্নিকাণ্ডে কারো কোনো গাফিলতি থাকলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এ বিষয়ে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে। এর আগেই শ্রম মন্ত্রণালয়ের অধীন কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের যুগ্ম মহাপরিদর্শককে (সেফটি) প্রধান করে আলাদা তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

“এই কারখানায় কোনো শিশু শ্রম ছিল কিনা তা খতিয়ে দেখা হবে। যদি প্রমাণ পাওয়া যায়, তাহলে শ্রম আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।”

অগ্নিকাণ্ডে নিহত শ্রমিকদের পরিচয় নিশ্চিত হওয়ার পর প্রত্যেকের স্বজনকে শ্রমিক কল্যাণ ফাউন্ডেশন তহবিল থেকে ২ লাখ টাকা ও আহতদেরকে আগামীকাল ৫০ হাজার টাকা করে চিকিৎসা সহায়তা দেওয়া হবে বলেও মন্নুজান সুফিয়ান জানান।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে রূপগঞ্জের একটি হাসপাতালে এবং ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন দগ্ধ শ্রমিকদের দেখতে যান প্রতিমন্ত্রী।

শ্রম সচিব কে এম আব্দুস সালাম, কলকারখান ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক নাসির উদ্দিন আহমেদ, শ্রম অধিদপ্তরের মহাপরিচাক গৌতম কুমারসহ মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা সেখানে ছিলেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ