Translate

শ্রেষ্ঠ শিশু শিল্পীর সম্মাননা পেলেন সিমরিন লুবাবা

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রতিটি পুরস্কারই মানুষের ভালো কাজের স্বীকৃতি।আর সেটা যদি খুব অল্প বয়সে পাওয়া যায় তাহলে আনন্দের পরিমাণ দ্বিগুণ হয়ে যায়।বর্তমান বাংলাদেশে শিশু অভিনেতা-অভিনেত্রীদের মধ্যে যারা দর্শকদের মনে খুব সহজেই জায়গা করে নিয়েছে তাদের মধ্যে সিমরিন লুবাবা অন্যতম।তাঁর অসাধারণ অভিনয়,মিষ্টি গানের কণ্ঠ এবং মুগ্ধকর সংলাপ সবাই মুগ্ধ হয়ে দেখে এবং শোনে।নিজের কাজের স্বীকৃতি স্বরূপ লুবাবা শ্রেষ্ঠ শিল্পী হিসেবে পুরস্কৃত হয়েছেন।

গত (২৫ অক্টোবর) সন্ধায় রাজধানীর একটি পাঁচ তারকা হোটেলে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষ্যে মিডিয়া ও সামাজিক ক্ষেত্রে স্ব স্ব অবদানের জন্য শিশু-কিশোর সমাজকল্যাণ সংস্থা ময়ূরপঙ্খী ৫০ জনকে ময়ূরপঙ্খি অ্যাওয়ার্ড-২১ প্রদান করা হয়।অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে অ্যাওয়ার্ড গ্রহণ করেন চিত্রনায়ক জায়েদ খান, ডি এ তায়েব, নিরব, চিত্রনায়িকা ইয়ামিন হক ববি, সংগীত শিল্পী এস আই টুটুল, ঐশী এবং শিশু শিল্পী সিমরান লুবাবা।অভিনয়ে অবদানের জন্য এ পুরস্কার পেলেন শিশু লুবাবা।

এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এ সম্মাননা তুলে দেন মাননীয় সংসদ সদস্য ও সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য অসীম কুমার উকিল। এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান,লিজান গ্রুপের চেয়ারম্যান তানিয়া হক শর্মী প্রমুখ।

এই আয়োজনের মূল কো-অর্ডিনেটর ছিলেন ময়ূরপঙ্খীর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান রুহিত সুমন।

এ প্রসঙ্গে এক ফেসবুক বার্তায় শিশু শিল্পী সিমরান লুবাবা বলেন, ‘ময়ূরপঙ্খী স্টার অ্যাওয়ার্ড’কে ধন্যবাদ।অ্যাওয়ার্ড বা সম্মাননা হলো নিজ নিজ কাজের স্বীকৃতি। ছোট্ট এই আমি আমার অভিনয় এবং কন্ঠ দিয়ে যতটা সম্ভব প্রতিভার স্বাক্ষর রাখতে চেষ্টা করছি।আমার পথচলা সবেমাত্র শুরু হয়েছে।যাঁরা (ময়ূরপঙ্খী স্টার অ্যাওয়ার্ড) আমায় আজকে ভালোবেসে আমার প্রতিভাকে সম্মান করে আমাকে স্বীকৃতি দিয়েছে তাদেরকে ধন্যবাদ।সেই সাথে ধন্যবাদ আপনাদের সবাইকে।আপনারা আমাকে ভালোবাসেন,স্নেহ করেন বলেই আজ আমি সিমরিন লুবাবা। এই শুভ-ক্ষণে মনে পড়ছে বলিউডের বিখ্যাত অভিনেতা শাহরুখ খানের ফ্যান সিনেমার একটি ডায়লগ যেখানে তিনি বলেছিলেন ‘আমি যেখানে আছি,যা কিছু হয়েছি সব আমার সমর্থকদের জন্যই হয়েছি, আমার সমর্থকরা না থাকলে আমিও থাকবো না’ ঠিক একই ভাবে আপনাদের প্রিয় ছোট্ট লুবাবা যতটুকু যা অর্জন করেছে তার জন্য আপনাদের ভালোবাসা ও দোয়া অনেক অনুপ্রেরণাদায়ী। আশা করছি আগামীতেও আপনারা আমাকে ভালোবাসবেন,দোয়া করবেন। আজকের এই আনন্দঘন মুহুর্তে খুব বেশি করে মনে পড়েছে আমার জানের দাদাকে।দাদা বেঁচে থাকলে নিশ্চই আজ তিনি আমার পাশে থাকতেন এবং খুশি হতেন। প্রত্যেকের পথ ভিন্ন,মত ভিন্ন, চিন্তাভাবনা ভিন্ন। কেউ শাহরুখ খান পছন্দ করে আবার কেউ আমির খান।কেউ লিওনেল মেসি পছন্দ করে আবার কেউ ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো।কারো বিরিয়ানী পছন্দ আবার কারো বার্গার।ঠিক একই ভাবে কেউ নৃত্যশিল্পী হতে চায়,কেউ সঙ্গীত শিল্পী হতে চায়,কেউ বিজ্ঞানী হতে চায়, কেউ মোটিভেশনাল স্পিকার হতে চায়।যে যা হতে চায় তার মত করে সে এগিয়ে যাক।সবার জন্য শুভকামনা ও ভালোবাসা।

সিমরিন লুবাবা।এই ছোট্ট বয়সেই অসংখ্য জনপ্রিয় বিজ্ঞাপনে কাজ করেছে। অনন্য প্রতিভার অধিকারী লুবাবা প্রখ্যাত মঞ্চ-টেলিভিশন অভিনেতা আবদুল কাদেরের নাতনি। তাই দাদার অনুপ্রেরণায়ই খুব অল্প বয়স থেকেই লাইট ক্যামেরার দুনিয়ায় লুবাবা শিশুশিল্পী হিসেবে পেয়েছে ব্যাপক পরিচিতি। অভিনয়ের পাশাপাশি গানও গাইতেন পারেন লুবাবা।তার গাওয়া বেশ কয়েকটি কভার গান ইতিমধ্যে শ্রোতারা পছন্দ করছেন।পাশাপাশি টিকটিকেও নিয়মিত নিজের উপস্থিত জানান দেন।তার আপলোড করা ভিডিওগুলো মূহুর্তে হয় ভাইরালও। লুবাবা দেশের গণ্ডি পেরিয়ে কাজ করেছেন পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতের রাজস্থানের সরকারি বিজ্ঞাপন চিত্রেও।

উল্লেখ্য,লুবাবা বর্তমানে নিয়মিত নাটক ও বিজ্ঞাপনে কাজ করছেন। এছাড়া অভিনয় করেছেন অমিতাভ রেজা চৌধুরী পরিচালিত ‘রিকশা গার্ল’, আশরাফ শিশিরের ‘৫৭০’, অনন্ত জলিলের ‘নেত্রী দ্য লিডার’সহ বেশকিছু চলচ্চিত্রে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ