Translate

শিক্ষার্থীদের হাতে ৫০টি বাস আটক : ‘হাফ ভাড়া’ নিতে রাজি রাইদা পরিবহন


অনলাইন ডেস্ক:

অর্ধেক (হাফ) ভাড়া নিতে বলায় এক শিক্ষার্থীকে ঘাড় ধাক্কা দিয়ে বাস থেকে নামিয়ে দেওয়ার ঘটনায় রাজধানীর রামপুরায় রাইদা পরিবহনের ৫০টি বাস আটক করেন ঢাকা ইমপিরিয়াল কলেজের শিক্ষার্থীরা। পরে এ ঘটনায় শিক্ষার্থীদের সঙ্গে সমঝোতায় রাজি হয়েছে রাইদা পরিবহনের মালিকপক্ষ।

রামপুরা থানায় দুইপক্ষের সমঝোতায় শিক্ষার্থীরা দাবি করেন, পরিচয়পত্র দেখানো মাত্র রাজধানীর যেকোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে হাফ ভাড়া নিতে হবে। পরে তাদের এই দাবি রাইদা কর্তৃপক্ষ মেনে নেয়।

সোমবার (১৫ নভেম্বর) বিকেল ৩টা ৫০ মিনিটে জাগো নিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন রামপুরা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. সাইফুল ইসলাম।

তিনি বলেন, ঢাকা ইমপিরিয়াল কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে রাইদা পরিবহনের সমঝোতা প্রায় শেষের দিকে রয়েছে। শিক্ষার্থীদের সব দাবি রাইদা পরিবহন কর্তৃপক্ষ মেনে নিয়েছে। শিক্ষার্থীরা রাইদা পরিবহনের কাছে দাবি করে, নিয়ম অনুযায়ী ঢাকা শহরের যেকোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা পরিচয়পত্র দেখানো মাত্র তাদের কাছ থেকে হাফ ভাড়া নিতে হবে। এছাড়া প্রতিটি বাসে নারীদের জন্য যে নয়টি আসন সংরক্ষিত থাকে সেখানে কোনোভাবেই নারী ছাড়া পুরুষ বসতে পারবে না।

পুলিশের এই কর্মকর্তা আরও বলেন, রাইদা পরিবহনের ম্যানেজিং ডিরেক্টর এসব দাবি মেনে নিয়েছেন ও আমাদের এসব বাস্তবায়নের বিষয়ে আশ্বাস দিয়েছেন। সমঝোতা শেষে এই রাস্তায় আটকে থাকা বাসগুলো ছেড়ে দেওয়া হবে।

এর আগে দুপুর ১টা ২০ মিনিটের দিকে রাজধানীর রামপুরায় বিটিভি ভবনের সামনে রাইদা পরিবহনের একটি বাস থেকে এক শিক্ষার্থীকে ঘাড় ধাক্কা দিয়ে নামানোর অভিযোগে পরিবহনটির প্রায় ৫০টি বাস আটক করেন শিক্ষার্থীরা। এ ঘটনায় ওই সড়কে প্রায় এক ঘণ্টা যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকে। পরে পুলিশ এসে শিক্ষার্থীদের বুঝিয়ে সড়ক থেকে সরিয়ে নিলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।

এ বিষয়ে রামপুরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম বলেন, রাইদা পরিবহনের একটি বাস যখন বিটিভি ভবনের সামনে আসে তখন বাসে থাকা এক শিক্ষার্থী চেকারকে হাফ ভাড়া নেওয়ার কথা বলে। চেকার তা না নিতে অস্বীকৃতি জানায় এবং তাকে বাস থেকে ঘাড় ধাক্কা দিয়ে নামিয়ে দেয়। এসময় ওই শিক্ষার্থী তার আশপাশের বন্ধুদের ফোন দিয়ে বিষয়টি জানালে বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থী এসে রাইদা পরিবহনের প্রায় ৫০টি বাস আটক করে।

তিনি আরও বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে শিক্ষার্থীদের আশ্বস্ত করলে তারা সড়ক থেকে সরে যায় এবং সড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়। অভিযুক্ত বাসটি আটক করা হয়েছে। বাস কর্তৃপক্ষ ও শিক্ষার্থীদের নিয়ে বিষয়টি সমাধানে আলোচনা চলছে।

সূত্র: জাগো নিউজ

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ